পরীমনিকে কেন ভার্চুয়াল চুমু দিলেন মাহি?

বিনোদন ডেস্ক

গত কদিন ধরে যে নায়িকা এমন অস্থিরতায় ভুগছেন, তা বোঝা যায় তার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের পোস্টগুলো দেখলেই। তবে এবার বোধহয় কিছুটা স্বস্তির নিশ্বাস ফেললেন তিনি।

মন ভালো নেই চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির, ঘর ভাঙার শব্দে হাহাকার উঠেছে হৃদয়ে। তাইতো কখনও লিখছেন ‘একা একা লাগাছে’, কখনও বা ‘একা হয়ে যাওয়ার’ প্রমাণ হিসেবে পোস্ট করছেন ‘একা মাহি’র ছবি।

গত কদিন ধরে যে নায়িকা এমন অস্থিরতায় ভুগছেন, তা বোঝা যায় তার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের পোস্টগুলো দেখলেই। তবে এবার বোধহয় কিছুটা স্বস্তির নিশ্বাস ফেললেন তিনি।

আরেক নায়িকা পরীমনির কাছ থেকে উপহার পেয়েছেন ঢাকাই সিনেমার এ নায়িকা। সে কথাই ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে জানিয়েছে মাহি।
‘পেনডেন্ট’ উপহার পেয়ে পরীমনিকে তাই ট্যাগ করে মাহি লিখেছেন, ‘চুম্মাহ পরীমনি।’ আর পরী উত্তরে কমেন্টে এসে লিখেছেন, ‘লাভ ইউ’, সঙ্গে দিয়েছেন চুমুর ইমোজি।

শরিফুল ইসলাম রাজের সঙ্গে বিয়েবিচ্ছেদ হয়ে গেছে পরীমনির। ছেলেকে নিয়ে একাই আছেন তিনি। সিঙ্গেল পরীর মতো মাহিও এখন সিঙ্গেল হওয়ারই পথে।

গত ১৬ ফেব্রুয়ারি রাকিব সরকারের সঙ্গে বিয়ে বিচ্ছেদ হচ্ছে বলে ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। একটি ভিডিও বার্তা দিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মাহি।

মাহি ভিডিওতে বলেন, ‘আজকে এ রকম একটা ভিডিও করতে হবে সেটা ভাবিনি। এ রকম আমাদের নিজেদের জন্য এটা বলাটা উচিত। সবার জানা উচিত। আমি আর রকিব আমরা আসলে খুব আন্ডারস্টান্ডিং থেকে বিয়ের সিদ্ধান্তে এসেছিলম। একটা পর্যায়ে মনে হয়েছে দুজন দুজনের জন্য না।’

তিনি বলেন, ‘একটা ছাদের নিচে দুটি মানুষ কেন ভালো নেই, সেটা তারাই ভালো জানে। এটা বাইরের থেকে বোঝা যাবে না।’

মাহি বলেন, ‘আমরা দুজন মিলেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমাদের মধ্যে কিছু বিষয় নিয়ে সমস্যা রয়েছে। তবে রকিব খুব ভালো মানুষ। তাকে আমি সম্মান করি। অনেক কেয়ারিং সে। খুব দ্রুতই আমরা আনুষ্ঠানিকভাবে সেপারেশনে যাচ্ছি, সেপারেশনে অআছি। সেপারেশন কবে আর কীভাবে হবে সেটিও দুজন মিলেই ঠিক করব।’

২০১৬ সালে সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপুকে বিয়ে করেছিলেন মাহি। ২০২১ সালের ২২ মে তাদের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। এরপর ২০২১ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর রাকিবকে বিয়ে করেন মাহি। তাদের একটি ছেলে রয়েছে। গাজীপুরের ব্যবসায়ী রাকিবেরও এটি দ্বিতীয় বিয়ে।

সোস্যাল নেটওয়ার্ক

সর্বশেষ সংবাদ
সর্বাধিক পঠিত